যদি সফল হতে চান তা হলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য

0
534
যদি সফল হতে চান তা হলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য
যদি সফল হতে চান তা হলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য

যদি সফল হতে চান, তা হলে সফল ব্যক্তি দের ভালো দিক গুলো অনুসরণ করুন। আর যদি ব্যর্থ হতে চান, তাহলে সফল ব্যক্তি দের হিংসা করুন। যারা সফল ব্যক্তি তাদেরকে আসলে হিংসা করে, ঘৃণা করে কোন লাভ নাই। তাদের ভালো দিক গুলো যদি আমি ফলো করতে পারি, আমি অনুসরণ করতে পারি, আমার জীবনে সেটি প্রতিফলণ ঘটাতে পারি তা হলে আমারো ওরকম কিছু একটা করার সম্ভভাবনা থেকে যায়।

আমাদের হাত হচ্ছে দুটো, আবার আমাদের মধ্যে কারো কারো হাত হচ্ছে তিনটা । ডানহাত, বামহাত আর অজুহাত এই অজুহাতের কোন ভেলু নাই, কেন ভেলু নয় যদি আপনি সফল হতে পারেন। তা হলে আপনার কোন ধরণের অজুহাত দেখাতে হবে না। আর যদি আপনি ব্যর্থ হন তা হলে আপনার অজুহাত কেউ শুনবেই না। সো এইটার কোন ভেলু নাই আসলে।

আপনি যাকে সম্মান করেন, ভালবাসেন কখনই তার সব কিছু নিয়ে ঘাটা ঘাটি করবেন না। এতে সমস্যা যেটা হয়, যাকে সম্মান করেন, ভালবাসেন তার সব কিছু নিয়ে ঘাটলে তখন তার এমন কিছু বিষয় আপনার চোখে পরবে। যে গুলো ভালো না তখন তাকে ঘৃণা করতে ইচ্ছা করবে, অসম্মান করতে ইচ্ছা করবে। এবং ওই সময়ে নিজের মণের মধ্যে একটা দন্দের সৃষ্টি হয়, সেই দন্দ থেকে বেরিয়ে আসাটা খুব কঠিন। এবং ক্ষতি হয় বেশি নিজের, বেটার হচ্ছে যাকে সম্মান করেন, যাকে ভালবাসেন দূর থেকে ভালবাসেন, তার কাছে না যাওটা বেষ্ট।

কাউকে সম্মান করার ও কোন দরকার নাই, কাউকে ঘৃণা করার ও কোন দরকার নাই। তারা যেমন তাদেরকে তেমন ভাবে গ্রহণ করেন, যদি গ্রহণ করতে না পারেন তা হলে তাদের থেকে দূরে থাকেন।

কোন পরামর্শ কে অন্ধভাবে গ্রহণ করবেন না। অন্যরা করছে বলে আমাকেও করতে হবে এই ধরণের ধারণা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। আপনি দেখেন আপনার কি করা উচিত, সব কাজ সবাইকে দিয়ে একই ভাবে হয় না। উনি কাজটি যে ভাবে করছেন, আপনি যদি একই ভাবে করতে যান তা হলে আপনি ফেলু্উর হবেন। আপনাকে দিয়ে এই কাজটি হবেই না, সো আপনাকে প্রথমেই দেখতে হবে কোনটা আপনার জন্য, কোন পথটা আপনার জন্য সেই পথটা বেছে নিতে হবে এবং সেই পথে হাটতে হবে।

আপনি যেমন হতে চান তেমন লোক জনের সাথে বেশি বেশি মিশেন। আপনি চাচ্ছেন ওজন কমাতে আর আপনি এমন লোকের সাথে মিশেন যে খাইতে খুব পছন্দ করে। তা হলে আপনার ওজন কখনই কোমবে না।

আমাদের একটা জাতীয় খাদ্য আছে, এটাকে আমি জাতীয় খাদ্য বলি সেটা হচ্ছে ক্রাস। আমরা সবাই কম বেশি ক্রাস খাই, ক্রাস খাওয়া ভালো, আমি প্রচুর ক্রাস খাই। যখন ক্রাস খাবেন আপনি কার উপর ক্রাস খাচ্ছেন এটা দিয়ে কিন্তু আপনার ব্যক্তিত ধরা পরে। যখনি কারও উপর ক্রাস খাবেন, কোন গানের উপর ক্রাস খাবেন বা কোন সিনেমার উপর ক্রাস খাবেন। ওই মানুষ টাকে নিয়ে লিখেন, তাকে প্রেম পত্র লিখেন তাকে পাঠানোর দরকার নেই ফেছবুকে শেয়ার করেন। নাম দেন প্রিয় মজনু বা আপনার পছন্দ, এতে আপনার চিন্তা ভাবনা সুন্দর হবে। আমি করতাম কাজটা এখনো করি, এটি চিন্তা ভাবনা সুন্দর করে, অনেক সুন্দর করে।

 আপনি যদি হেরে যান পৃথিবীর অনেকেই কিন্তু জ্বিতে যায়    কিছু কাজের বুদ্ধি

Leave a Reply