মাইক্রোসফট ওয়ার্ড হোম মেনু সম্পর্কে বিস্তারিত

0
568
মাইক্রোসফট ওয়ার্ড হোম মেনু সম্পর্কে বিস্তারিত

তোমরা ইতোমধ্যে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড প্রসেসর ব্যবহার করে লেখালেখি করতে শিখে গেছো। এ লেখাগুলোকে একটু সাজিয়ে- গুছিয়ে উপস্থাপন করলে কেমন হয়? নিশ্চয়ই তোমাদের অনেক ভালো লাগবে। মাইক্রোসফট ওয়ার্ড প্রসেসরের ভাষায় এ কাজটিকে “ফরমেটিং টেক্সট” বলা হয়।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড হোম মেনু সম্পর্কে বিস্তারিত

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড প্রসেসরে লেখালেখি করার জন্য বিভিন্ন স্টাইলের অক্ষর রয়েছে। এ গুলোকে বলা হয় ফন্ট। লেখালেখির সাজসজ্জায় প্রথমেই দেখতে হয় লেখাটি কোন ধরণের ফন্টে হবে। ফন্ট নির্বাচনের কাজটি করতে হয় হোম মেনুর ফন্ট গ্রুপের ফন্টের নামের ড্রপ- ডাউন বক্স থেকে। এখানে অসংখ্য ফন্টের মধ্য থেকে তোমার পছন্দ মতো একটা ফন্ট বেছে নাও। অনেক সময় লেখার মাঝখানে ভিন্ন স্টাইলের ও সাইজের ফন্ট ব্যবহারের প্রয়োজন হতে পারে। সেক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত লেখাটিকে সিলেক্ট করে অথবা নির্বাচন করে ফন্ট গ্রুপের ফন্ট নামের  ড্রপ- ডাউন বক্স থেকে ফন্ট নির্বাচন করে দিলে লেখাটি ঐ ফন্টে হবে।

এবার আসি ফন্ট সাইজের কথায়, ফন্ট সাইজ নির্ধারণ করার জন্য ফন্ট নামের পাশে লেখা সংখ্যার ড্রপ- ডাউন বক্সে ক্লিক করে ঈপ্সিত সংখ্যা নির্বাচন করতে হবে। তোমরা চাচ্ছ যে লেখার কোনো একটা অংশ মোটা হবে। সেক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত অংশকে সিলেক্ট করে অথবা নির্বাচন করে বোল্ড এ ক্লিক করতে হবে। এবার তোমার ইচ্ছে হচ্ছে যে কোনো একটা লেখাকে একটু বেকিয়ে দিতে। সেক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত লেখাটিকে সিলেক্ট করে অথবা নির্বাচন করে  ইটালিক এ ক্লিক করতে হবে। যদি চাও কোনো লেখার নিচে একটি দাগ দিতে। তাহলে কাঙ্ক্ষিত লেখাটিকে সিলেক্ট করে অথবা নির্বাচন করে আন্ডারলাইন এ ক্লিক করতে হবে।

এবার আসি স্টিকথ্রট এর কাছে। ধরেন আপনার একটা লেখা ভুল হয়েছে বা লেখাটা লেখাই থাকবে উপর দিয়ে একটা দাগ দিয়ে কেটে দিতে। সেক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত লেখাটিকে সিলেক্ট করে অথবা নির্বাচন করে স্টিকথ্রট এ ক্লিক করতে হবে। তোমরা তোমাদের ইচ্ছে মতো ফোন্ট হাই- লাইট করতে পার। এজন্য ফন্ট গ্রুপের হাই- লাইট কালার আইকনের ড্রপ- ডাউন বক্সে ক্লিক করে হাই- লাইট কালার নির্বাচন করতে হবে। তোমরা তোমাদের ইচ্ছা মতো ফন্টের কালার নির্ধারণ করতে পার। এজন্য ফন্ট গ্রুপের আইকনের ড্রপ- ডাউন বক্সে ক্লিক করে ফন্টের কালার নির্বাচন করতে হবে।

এছারাও হোম মেনুর ফন্ট গ্রুপে ফন্ট বিষয়ক আরো অনেক সুবিধা আছে। তোমরা সে গুলো ব্যবহার করে দেখতে পারো।

লেখালেখির সাজসজ্জা

বুলেট, নাম্বার এবং লাইনের ব্যবধান

আমাদের ফুল

  • শাপলা
  • পদ্মা
  • গোলাপ
  • দাধা
  • বেলি
  • জবা

আমাদের ফল

  1. আম
  2. জাম
  3. কাঁঠাল
  4. লিচু
  5. পেয়ারা
  6. নারকেল

আমরা অনেক সময় বিভিন্ন রকমের তালিকা তৈরি করে থাকি। এসব তালিকায় ধারাবাহিকতা রাখার জন্য কোনো চিহ্ন, বর্ণ বা সংখ্যা ব্যবহার করে থাকি। এগুলোকে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড প্রসেসরের ভাষায় বুলেট বা নাম্বার বলা হয়।

হোম ট্যাবের প্যারাগ্রাপ গ্রুপে বুলেট ও নাম্বারের আইকন কমান্ড পাওয়া যায়।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড বুলেট ও নম্বর

লাইনের ব্যবধানঃ দুটি লাইনের মধ্যবতী দূরত্ব নির্ধারণ করার জন্য টুলটি  ব্যবহৃত হয়।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড লাইন ব্যবধান

এএসবি কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার এর পক্ষ থেকে আপনাকে অভিনন্দন।

এখানে অভিজ্ঞ শিক্ষক দ্বারা ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপমেন্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং কম্পিউটার

প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

যোগাযোগঃ 01643636337

Leave a Reply