আপনি যদি হেরে যান পৃথিবীর অনেকেই কিন্তু জিতে যায়

0
638
আপনি যদি হেরে যান পৃথিবীর অনেকেই কিন্তু জ্বিতে যায়

আপনি যদি হেরে যান পৃথিবীর অনেকেই কিন্তু জিতে যায়।যারা আপনাকে পছন্দ করে না, তাদেরকে হারানোর জন্য হলেও আপনি হেরে যাবেন না এই প্রিতজ্ঞা নেন। জিততে হলে আসলে কি লাগে, মেধা অনেক ভালো ফেমেলি থেকে আসা, অনেক অনুকুল পরিবেশ এইসব কিছুই না। জিততে হলে আসলে দুইটা জিনিষ লাগে, ১. ইমশান/ আবেগ, ২. ইচ্ছা শক্তি

একটা শত্তি ঘটনা শেয়ার করি ইংলান্ডে একটা টুনামেন্ট হচ্ছিল ফুটবল টুনামেন্ট। সেই টুনামেন্টে প্রথম দুইটা মেসে একজন প্লিয়ার সে ভালো খেলে না। খুবি বাজে প্লিয়ার প্রথম দুইটাতে সে কোন পারফোউম করতে পারল নাঠ। তার পায়ে সে কোন ভাবে বলই রাখতে পারল না। এবং প্রথম দুইটা মেসে তাদের টিম হেরে গেলো, থার্ড মেসে যেটা ফাইনাল মেস ছিলো।

তার কোর্স তাকে বললেন ভাই তোমাকে আজ নামার দরকার নাই, তুমি নামা আর ১১ জনের জাইগায় ১০ নিয়ে খেলা সোমান কথা। তোমার নামার দরকার নাই, তখন সে বললো স্যার আমাকে একটা সুযোগ দেন, স্যার বললো তোমাকে আর সুযোগ দেওয়ার দরকার নাই, তুমি তো খেলাই পারো না। তোমাকে কি সুযোগ দিবো, বললো স্যার আমাকে সুধু আজকে সুযোগ দেন শেষ বারের মত। বললো ভাই তুমি তো খেলাই পারো না তোমাকে নেওয়া মানেই তো লস।

বলে স্যার আমাকে শুধু আজকে সুযোগ দেন, আমরা তো হেরেয় গিয়েছি, আমাকে স্যার একটু সুযোগ দেন। আমি খেলতে না পারলে আর আপনাকে বলতে আসব না, আজ আমাকে খেলতেই হবে স্যার। সেই মেসে ওই ছেলেটাই কি ভাবে যেন বদলে গেলো অদভুত শক্তিতে, অদভুত ক্ষিপ্রতাই খেলতে শুরু করল। সেই মেসে তারা জেতে তিন এক গোলো এবং এই তিন গোলের ভেতর তার দেওয়া দুইটা গোল। এই ব্যাপার টা দেখে সবাই অবাক হয় কি ব্যাপার কি হল তখন তার কোর্স তাকে ডেকে পাঠালেন ভাই তুমি আজকে যে খেলা দেখায়েছ।

এই খেলা এত দিন কোথাই ছিলো তুমি ভালো প্লিয়ার তা হলে আগে খেলো নাই কেন ভাই। তখন ওই ছেলেটা চোখের পানি ফেলছে মাথা নিচু করে দারিয়ে আছে বলছে স্যার আমি বাসাই যাব। আরে ভাই বলো তুমি কেন আগে খেলো নাই আজকে তো অনেক ভালো খেলেছো ঘটনা কি, বলে স্যার আমি বাসায় যাবো। বলছি তুমি আমার প্রশ্নোর উত্তর দিয়ে যাও, বলে স্যার আমি উত্তর দিব না। তখন কোর্স বললেন দেখ বেটা আমি তোর বাবার বয়সের আমি তোর কাছে যা জিগ্গাসা করছি তার উত্তর দিয়ে যা।

তখন সে বলল স্যার আমার সাথে একজন বৃদ্ধ লোক খেলা দেখতে আসতেন খেয়াল করেছেন।হ্যা খেয়াল করেছি আজকে তো আসে নাই মনে হয়, না স্যার আসে নাই, উনি কি অসুস্থ তখন ছেলেটা বললো স্যার যে বৃদ্ধ লোকটা আমার সাথে খেলা দেখতে আসতেন উনি আমার বাবা। আমার মা নাই বাবাই ‍শুধু আছে যখন আমার বাবাকে নিয়ে আমি বাসায় ফিরতাম তখন আমার বাবা আমাকে জিগ্গাসা করতেন, কিরে বাবা তুই আজকে কেমন খেলেছিচ।বাবাকে আমি মিথ্যা কথা বলতাম বাবা আজকে আমি অনেক ভালো খেলেছি এতটা গোল দিয়েছি এতটা গোল সেভ করেছি ইত্যাদি।

আমার বাবা অন্ধ ছিলেন চোখে দেখতেন না কিন্তু বাবাই ছিলো আমার সব তাই বাবাকে আমি খুশি করতে চেয়ে ছিলাম। বাবাকে বানিয়ে বানিয়ে মিথ্যা কথা বলতাম বাবা তখন শিশুদের মত হাসতেন আর হাত তালি দিতেন। দুইদিন আমি এই কাজটি করছি স্যার বাবা খুব খুশি ছিলেন। গত কাল রাতে আমার বাবা মারা গেছে স্যার, শুধু মাত্র আজকে আমার বাবা উপর থেকে আমার খেলা দেখেছে। আমি আর বাবাকে কি ভাবে মিথ্যা কথা বলবো আমি আমার বাবার জন্য খেলেছি।

এই যে ব্যাপার টা এটা কিন্তু কোন দক্ষতা না, এটা কোন মেধা না, এটা হচ্ছে আবেগ। মানুষ কিন্তু কাজ করে আবেগে, একটা মানুষকে যখন অনেক কষ্ট দেন সে যখন কিছুই বলে না তার মধ্যে এক ধরণের শক্তি জমা হয়। ওই শক্তি দিয়ে আপনাকে পুড়িয়ে ছার-খার করে দিতে পারে ওই শক্তিটা নিজের মধ্যে জমা করার চেষ্টা করেন।

দেখবেন অনেক সময় বেকার ছেলেটা মাঝে মধ্যে তার মানি ব্যাগ টা বের করে তার প্রেমিকার ছবিটা দেখে নেই। ওই সময় সে ভাবে চাকুরি টা পেয়ে গেলে সে কত সুখি থাকবে, তাকে কতো ভালো রাখতে পারবো, সে আমার দিকে কতো প্রত্যাসা করে আছে ইত্যাদি। তখন সে পর পর দুই রাতে না ঘুমিয়ে পড়াশোনা করেন এটা কিন্তু আবেগ থেকে আসে, কোন মেধা থেকে আসে না, কোন দক্ষতা থেকেও আসে না।

যারা আপনাকে ভালো বলেন তাদের সাথে বেশি মিশুন।           কিছু কাজের বুদ্ধি          যদি সফল হতে চান তা হলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য

Leave a Reply